আমাদের সড়ক আর নিরাপদ হলো না

সড়ক দুর্ঘটনায় ফি বছর ৭ হাজার কোটি টাকারও বেশি সম্পদহানি হয়। এই হার দেশজ উৎপাদনের (জিডিপি) ১ দশমিক ৯৫ শতাংশের সমান।

ভাষা আন্দোলনের আখ্যান ও একজন বদরুদ্দীন উমর

ষাটের দশকের শুরু থেকেই বদরুদ্দীন উমর ভাষা আন্দোলনের একটি তথ্যনির্ভর ইতিহাস লেখার ভাবনা শুরু করেন। ওই আন্দোলনে সক্রিয় ভাবে যোগ না দেওয়ায় তিনি অনেকটা নির্মোহ অবস্থান নিতে পেরেছিলেন আন্দোলনের ইতিহাস রচনা করতে গিয়ে।

পরিযায়ী পাখিদের নিরাপদ করতে দরকার সর্বাত্মক সচেতনা

|| এ টি এম মোসলেহ উদ্দিন জাবেদ || শীত এলেই অতিথি পাখিদের উপস্থিতিতে মুখর হয় আমাদের দেশ। দেশের প্রায় প্রতিটি জেলাতেই শীতের অতিথি পাখিদের দেখা

চাল নিয়ে চালাকি বন্ধের দায়িত্বটা সরকারেরই

বাংলাদেশের ধান গবেষণা ইন্সটিটিউট পাঁচ মাসে আগে আভাস দিয়েছিলো যে, এ বছরের শেষে প্রায় সাড়ে ৫৫ লাখ টন চাল উদ্বৃত্ত থাকবে, অথচ বাজারে সব ধরণের চালের দামই বেড়ে যাচ্ছে কেন?

পাল্টে যাওয়ার আগের শিরোনাম বেহায়ার বিদায়

‘রাজার দোষে রাজ্য নষ্ট, প্রজা কষ্ট পায়’! শত জাতি, ভাষা-সংস্কৃতির আমেরিকায় বিভেদের বিষকে যিনি ক্ষণে ক্ষণে উস্কে দিয়েছেন, তিনি প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প। ইতিহাসের আস্তাকুঁড় থেকে তুলে এনেছেন বর্ণবাদকে। জাতিকে ঐক্যবদ্ধ করার বদলে শুরু থেকেই প্রশ্রয় দিয়েছেন বিভক্তিকে!

বন্ধুত্বের সুযোগে যৌনহয়রানি পরিবার সমাজ ও রাষ্ট্রের দায় কতটা

|| নজরুল ইসলাম তোফা || বহু প্রজাতির “জীব সম্প্রদায়” আছে সে গুলো প্রধানত নারী কিংবা পুরুষ হিসেবে দুটি আলাদা শ্রেণীতে বিভক্ত, এমন শ্রেণী দু’টির প্রতিটি

সহিংস আমেরিকা পুঁজিবাদ ও সাম্রাজ্যবাদের ভেতরগত সংকট

রিপাবলিকান ও ডেমোক্রেটিক পার্টির মধ্যে মূলগত পার্থক্য খুব সামান্য। শাসক-শোষকদেরই দুই দল। লক্ষ্যে ভিন্নতা নাই, কৌশলগত দৃষ্টিভঙ্গীতে পার্থক্য। শোষণের ধারাবাহিকতায়, আমেরিকানরাই বলে যে, সম্পদের ভাগাভাগি হয়েছে ১% ও ৯৯%। এক শতাংশ মানুষের হাতে ৯৯% সম্পদ। আর নিরানব্বই ভাগ মানুষের ভাগ্যে ১% সম্পদ।

বাংলাদেশের এখনকার সংকটটা শাসনতান্ত্রিক

নাগরিককে আইনত জুলুম-নিপীড়ন করার ঔপনিবেশিক মডেলের আইনের সাপেক্ষে মৌলিক অধিকারকে বিচার করা যাবে না। সমাজের দ্বন্দ্বগুলোর শান্তিপূর্ণ মীমাংসার পথ থাকা দরকার। একটা অন্তর্ভূক্তিমুলক বা ইনক্লুসিভ ও গণক্ষমতাতান্ত্রিক রাষ্ট্র বিনির্মাণে এগুলো অবশ্য এবং এই মুহূর্তে করণীয়।

চোখের সামনে ধরা দিল পদ্মা সেতু

বাংলাদেশে রাস্তা, সেতু বা ব্রিজ, রাস্তার কার্পেটিং হচ্ছে উন্নয়ন। মান সম্পন্ন কর্মসংস্থান, সার্বজনীন পেনশন, সবার জন্য স্বাস্থ্য, বেকার ভাতা কিংবা সবার জন্য নিরাপত্তা এখনও উন্নয়ন দর্শন বলে স্বীকৃত ও গৃহীত হয়নি।

উপকূল দিবস এখন সময়ের দাবি

সম্প্রতি ১২ নভেম্বর ২০২০ উপকূলজুড়ে এ দাবি পূর্বের ন্যায় এবারও উচ্চারিত হয়েছে। উপকূল ফাউন্ডেশন আয়োজনে রাজধানী ঢাকাসহ ভোলা, বরিশাল, পটুয়াখালী

সংবাদ সারাবেলা