কম দূষন আর রঙিন ফুলের রঙে শোভাশিত ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়ক

বায়ুদূষণের জন্য অর্ধেক দায়ই মূলত তরল জ্বালানি পোড়ানোর মাধ্যমে তৈরি হওয়া ধোঁয়া। বর্তমানে কম গাড়ি চলাচল করায় দূষণের মাত্রা কমেছে। কিন্তু তা তো সাময়িক। সব খুলে দিলে আবার তো আগের অবস্থা হয়ে যাবে।

হাতে ভাজা মুড়ির ঐতিহ্য লক্ষীপুর গ্রামে

চলছে পবিত্র সিয়াম সাধনার মাস রমজান। মুসলিম সম্প্রদায়ের মানুষ রোজা পালন শেষে সন্ধ্যায় বিভিন্ন বাহারি খাদ্য সামগ্রী দিয়ে ইফতার করে থাকেন। তার মধ্যে অন্যতম সামগ্রী মুড়ি। আর সেই মুড়ি যদি হাতে ভাজা হয়, তবে তো সোনায় সোহাগা।

লালমাই পাহাড়ে বিরল উদ্ভিদের সমাহার

উঁচু-নিচু পাহাড়। পাহাড়ের মাথায় ইট বিছানো পথ। পথের দুই পাশে বিরল ও বিপন্ন প্রজাতির উদ্ভিদের সমাহার। ইটের রাস্তা দিয়ে হাঁটতেই একটু পরপরই দেখা মিলে উদ্ভিদের পরিচিতি বোর্ডের। সেখানে রয়েছে উদ্ভিদের বিস্তারিত বর্ণনা।

ঐতিহ্য ও সম্প্রীতির পহেলা বৈশাখ

আমাদের দেশে জাতি, ধর্ম, বর্ণ নির্বিশেষে সকল মানুষের প্রবল উৎসাহ ও উদ্দীপনার মধ্য দিয়ে দিনটি পালিত হয়। দিনটি ভালোভাবে উপভোগ করার জন্য নানা উৎসব, খেলা, প্রদর্শনী, সাংস্কৃতিক প্রভিতী অনুষ্ঠানের আয়ােজন করা হয়।

ঠাকুরগাঁওয়ে তৈরি হচ্ছে পরিবেশবান্ধব ইট, লাগছে না মাটি ও প্রাকৃতিক জ্বালানি

ইট তৈরি করতে আনুপাতিক হারে ৪০ শতাংশ ফ্লাই অ্যাশ, ৪০ শতাংশ বালু, ১৫ শতাংশ সিমেন্ট ও ৫ শতাংশ পাথরকুচি ব্যবহার করা হচ্ছে। দিনে ৭ থেকে ৮ হাজার ইট বানানো হয় এই ভাটায়। প্রায় ৪০ থেকে ৫০ জন শ্রমিক কাজ করছেন

নতুন বছর বরণে প্রাণ প্রকৃতির বৈসাবী শুরু পাহাড়ে

মুলত ত্রিপুরাদের ‘বৈসু’, মারমাদের ‘সাংগ্রাই’ আর চাকমাদের ‘বিঝু’। এ তিনের প্রথম অক্ষলের সম্মিলনই হচ্ছে ‘বৈসাবি’। বৈসাবী মানেই পাহাড়ে প্রাণের উৎসব আর সম্প্রীতির মেলবন্ধ। বছরের পর বছর ধরে অরণ্যঘেরা পাহাড়ে ঐতিহ্যবাহী সামাজিক উৎসব ‘বৈসাবী’ উচ্ছাসের রঙ ছড়ালেও গত বছরের মতো এবছরও বৈশ্বিক মহামারী করোনার থাবায় ধূসর হয়ে গেছে পাহাড়ের সব রঙ আর প্রাণের উচ্ছাস।

কুমিল্লার বিশ্বশান্তি প্যাগোডায় শান্তির মুগ্ধতা

১৯৯৫ সালে দেড় একর ভূমির উপর নব শালবন বিহার প্রতিষ্ঠিত হয়। সেখানে ধর্মীয় উপাসনালয়, অনাথ আশ্রম, অতিথিশালা স্থাপন করা হয়। তার পাশে ২০১৭ সালে থাইল্যান্ডের বিভিন্ন ব্যক্তির অর্থ সহায়তায় নির্মিত হয় বিশ্বশান্তি প্যাগোডা।

করোনায় থমকে গেছে মৃৎশিল্পীদের যাপিতজীবন

এবারও করোনায় হচ্ছে না বৈশাখি মেলা। এসব ভেবে কুল পাচ্ছেন না নরসিংদীর মৃৎশিল্পীরা। কি করে চলবে সংসার। কি করে সন্তানের মুখে তুলে দেবেন দু’মুঠো খাবার। যাপিতজীবন থমকে গেছে জেলার মৃৎশিল্পীদের।

গুনাইঘর বায়তুল আজগর সাত গুম্বুজ মসজিদ স্থাপত্যে বিশিষ্ট

মসিজদটির নির্মাণ কাজ শুরু হয় ২০০২ সালে। ২০০৫ সালে এটি খুলে দেয়া হয় নামাজীদের জন্য। সাবেক এমপি ইঞ্জিনিয়ার মন্জুরুল আহসান মুন্সী মসজিদটি নির্মাণ করেন। মসজিদটির স্থপতি শিল্পী শাহিন মালিক। ক্যালিগ্রাফি, কারুকাজ ও নকশার শিল্পী বশির মেসবাহ।

সংগ্রামে জীবন টেনে নেয়া এক মোনছেপ আলী

শতবছর বয়সী মোনছোপ আলী পায়ে হেঁটে গ্রামে গ্রামে ঝালমুড়ি, দুধ, ডিমের মতো খাদ্যপণ্য বিক্রি করেন। জীবিকার তাগিদে প্রতিদিন মাইলের পর মাইল ছুটে চলেন পায়ে হেঁটে। জীবনের শেষ সময়েও সংগ্রামী জীবনে যুদ্ধ করে যাচ্ছেন তিনি। শত বছর পার করলেও জোটেনি বয়স্ক ভাতার কার্ড।

সংবাদ সারাবেলা