গাবতলী-মোহাম্মদপুর বেড়িবাঁধ সড়ক দুই মাসেই দখলমুক্ত হবে

নিজস্ব প্রতিবেদক

গাবতলী-মোহাম্মদপুর বেড়িবাঁধ সড়ক আগামী দুই মাসের মধ্যে দখলমুক্ত করার ঘোষণা দিলেন ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের (ডিএনসিসি) মেয়র আতিকুল ইসলাম। সোমবার ওই এলাকায় উচ্ছেদ অভিযান চালানোর সময় এসব কথা বলেন মেয়র।

আতিকুল ইসলাম বলেন, গাবতলী থেকে মোহাম্মদপুরগামী বেড়িবাঁধ সড়কে দখলে থাকা প্রায় ১৪ একর জায়গা আগামী দুই মাসের মধ্যে উদ্ধার করা হবে। তিনি বলেন, এ সড়কে থাকা বালু ও ইটের ব্যবসা প্রতিষ্ঠান থেকে কর নেওয়া হবে।

তিনি আরও বলেন, এখানে ওয়াসার ৫৪ একর জমি আছে, অধিগ্রহণ করা। যাদের থেকে অধিগ্রহণ করা হয়েছে তাদের সরকার টাকাও দিয়েছে। কিন্তু আরেকটি পক্ষ এ জায়গা দখল করে আছে। এর ঠিক সামনেই আমাদের ৫২ একর জায়গা আছে। দখলদাররা আমাদের কাজ করতে দেন না, আমরা দেয়াল করতে গেলে বাধা দেন। কারণ আমাদের জায়গা দিয়ে তারা তাদের রাস্তা বানিয়েছে। এ জায়গা আজ আমি নিজে উপস্থিত থেকে উদ্ধার করছি। বালু ফেলে তাদের রাস্তা আটকে দিচ্ছি।

কতদিন অবৈধ দখল উচ্ছেদ হবে এমন প্রশ্নের জবাবে আতিক বলেন, আজই সাড়ে চার একর জায়গা দখলমুক্ত করবো। বাকি জায়গা আগামী দুই মাসের মধ্যে উদ্ধার করে ফেলব। আর সব কাজ আগামী ছয় মাসে শেষ হয়ে যাবে।

আরও পড়ুনঃ  একাদশে ভর্তি কার্যক্রম শুরুঃ যেভাবে আবেদন করবেন

এসময় ডিএনসিসির প্রধান সম্পত্তি কর্মকর্তা মোজাম্মেল হক বলেন, ৫২ একর জায়গার মধ্যে ১৪ একর জায়গার মতো দখলে আছে। বাকি জায়গায় সড়ক আছে। এ ১৪ একর জায়গায় আমরা দেয়াল নির্মাণ করতে গেলে চারটি জায়গায় বাধা পাই। সেখানে পকেট গেট করা হয়েছে। এরমধ্যে তিনটি আজ দখলে নেব আমরা। আর একটি গেট একটি আবাসিক এলাকার। সেখানকার লোকেরা বিকল্প চলাচলের রাস্তা করার জন্য কিছুদিন সময় চেয়েছে বলে জানান তিনি।

অভিযানকালে মেয়রের উপস্থিতিতে একটি ভারী যানবাহনের গ্যারেজের চলাচলের পথ বালু দিয়ে আটকে দেওয়া হয়। সেখানে সিটি করপোরেশনের দেয়াল নির্মাণ করা হবে। এ সময় সংশ্লিষ্ট ওয়ার্ডের কাউন্সিলরসহ সিটি করপোরেশনের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

এই সম্পর্কিত আরও সংবাদ

সংবাদ সারাবেলা