খোঁজ মিলেছে কুড়িগ্রাম পৌরবাসিন্দা মালিজার

জাতীয় দৈনিক সংবাদ সারাবেলায় ১৫ই জুলাই মালিজাকে নিয়ে খবর করা হলে সান্তাহার রেলওয়ে পুলিশের নজরে পড়ে। এরই প্রেক্ষিতে বৃহস্পতিবার ২২শে জুলাই সান্তাহার রেলওয়ে পুলিশের উপ-পরিদর্শক জাফর আলী সংবাদ সারাবেলা সম্পাদকের সঙ্গে যোগাযোগ করেন। পরে সম্পাদক কুড়িগ্রাম প্রতিনিধি সাইফুর রহমান শামীমকে জানালে তিনি কুড়িগ্রাম সদর থানা কর্তৃপক্ষকে বিষয়টি জানান।

|| সারাবেলা প্রতিনিধি, কুড়িগ্রাম ||

দুই মাসেরও বেশী সময় ধরে নিখোঁজ মালিজার খোঁজ মিলেছে। তিনি এখন সান্তাহার জিআরপি থানায়। জাতীয় দৈনিক সংবাদ সারাবেলায় ১৫ই জুলাই মালিজাকে নিয়ে খবর করা হলে সান্তাহার রেলওয়ে পুলিশের নজরে পড়ে। এরই প্রেক্ষিতে বৃহস্পতিবার ২২শে জুলাই সান্তাহার রেলওয়ে পুলিশের উপ-পরিদর্শক জাফর আলী সংবাদ সারাবেলা সম্পাদকের সঙ্গে যোগাযোগ করেন। পরে সম্পাদক কুড়িগ্রাম প্রতিনিধি সাইফুর রহমান শামীমকে জানালে তিনি কুড়িগ্রাম সদর থানা কর্তৃপক্ষকে বিষয়টি জানান।

উল্লেখ্য যে, কুড়িগ্রাম পৌরসভার ধরলাব্রিজ সংলগ্ন সওদাগড় পাড়া নিবাসী আলমগীরের স্ত্রী মালিজা বিভিন্ন জায়গায় চুড়ি, ফিতা ও মেয়েদের জিনিষপত্র বিক্রি করতেন। চলতি বছরের ২৫শে মার্চ তারিখ থেকে তাকে খুঁজে পাওয়া যাচ্ছিল না।

“নিখোঁজ মালিজার সন্ধান চায় তার পরিবারের লোকজন” শিরোনামে সংবাদ সারাবেলা পত্রিকায় ১৫ই জুলাই খবর প্রকাশিত হয়। ২২শে জুলাই মালিজাকে পেয়ে সান্তাহার জিআরপি থানায় রাখা হয়েছে বলে নিশ্চিত করেছেন সান্তাহার রেলওয়ে পুলিশের পরিদর্শক জাফর আলী। বিষয়টি জানবার পর সংবাদ সারাবেলার কুড়িগ্রাম প্রতিনিধি কুড়িগ্রাম সদর থানার সেকেন্ড অফিসার প্রলয় কুমার বর্মাকে জানান। প্রলয় কুমান বর্মার নির্দেশে পুলিশের একটি টিম মালিজার বাড়িতে যান। মালিজাকে সান্তাহার থেকে ফিরিয়ে আনার জন্য প্রস্তুতি চলছে বলে এই প্রতিনিধিকে নিশ্চিত করেছেন সদর থানার সেকেন্ড অফিসার প্রলয় কুমার বর্মা।

আরও পড়ুনঃ  ভোগান্তির শেষ নেই রামগতি উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে

 

এই সম্পর্কিত আরও সংবাদ

সংবাদ সারাবেলা