তরমুজের আকাশচুম্বি দাম নিয়ন্ত্রনে গৌরনদীতে অভিযান

||  সারাবেলা প্রতিনিধি, গৌরনদী ||

বরিশালের গৌরনদীসহ পাশ্ববর্তী এলাকায় প্রথম দিকে তরমুজের দাম কিছুটা কম থাকলেও রমজান শুরু হওয়ার থেকে তরমুজের লাগামহীন মূল্যে থাকায় গরিব ও মধ্যবিত্তদের ক্রয় ক্ষমতার বাইরে চলে গেছে। গরমের স্বস্তিদায়ক রসালো ফল তরমুজ। ফলে তরমুজ এখন আর গরিবের ফল নয়। কয়েকদিনের ব্যবধানে তরমুজের দাম আকাশচুম্বি হওয়ায় বাজার স্বাভাবিক রাখতে বরিশাল জেলা প্রশাসক মোঃ জসীম উদ্দিন হায়দারের নির্দেশে গতকাল বুধবার সকালে উপজেলা বাজার মনিটংরি কমিটির সভাপতি ও উপজেলা নির্বাহী অফিসার বিপিন চন্দ্র বিশ্বাস উপজেলার বিভিন্ন এলাকায় অভিযান চালায়।

এসময় অস্বাভাবিক দামে তরমুজ বিক্রির দায়ে তিনজন তরমুজ ব্যবসায়ীকে তিন হাজার পাঁচশ’ টাকা জরিমানা করা হয়। পাশাপাশি সহনীয় দামে তরমুজ বিক্রির জন্য বিক্রেতাদের প্রতি আহবান জানান উপজেলা নির্বাহী অফিসার বিপিন চন্দ্র বিশ্বাস । এবং কেজি দরে তরমুজ বিক্রি করায় ৫ ব্যবসায়ীর কাছ থেকে মুচলেকা নিয়ে সর্তক করা হয়।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, পূর্বে একেকটা তরমুজ পিচ হিসেবে বিক্রি হলেও বর্তমানে তা বিক্রি হচ্ছে কেজি দরে। গৌরনদীসহ পাশ্ববর্তী  বিভিন্ন হাট-বাজার ও ফলের দোকানগুলোতে ৫০ টাকা থেকে শুরু করে ৬০ টাকা কেজিতে বিক্রি হচ্ছে তরমুজ। এতে করে ছোট সাইজের একেকটা তরমুজের মূল্যে গিয়ে দাড়াচ্ছে দেড় থেকে দুইশ’ টাকায়।

আরও পড়ুনঃ  বঙ্গবন্ধুর পর এবার কুষ্টিয়াতে ভাঙলো বাঘা যতীনের ভাস্কর্য

প্রথম দিকে দাম কিছুটা কম থাকলেও রমজান শুরু হওয়ার থেকে তরমুজের লাগামহীন মূল্যে থাকায় গরিব ও মধ্যবিত্তদের ক্রয় ক্ষমতার বাইরে চলে গেছে গরমের স্বস্তিদায়ক রসালো ফল তরমুজ। ফলে তরমুজ এখন আর গরিবের ফল নয়।

এনিয়ে একাধিক ব্যবসায়ীদের সাথে আলাপকালে তারা জানিয়েছেন, মোকামে তরমুজের দাম বেশি হওয়ার কারনে প্রভাব পরছে খুচরা বাজারে। মোকাম থেকে কেজি দরে তরমুজ ক্রয় করা হচ্ছে কিনা জানতে চাইলে কেউ সদুত্তর দিতে পারেননি। অপরদিকে তরমুজের দাম আকাশচুম্বি হওয়ায় সোচ্চার হয়ে উঠছেন ক্রেতারা। ইতিমধ্যে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে তরমুজের দাম নিয়ে ব্যবসায়ীদের নানান সমালোচনা করছেন তরমুজ ক্রেতারা। এমনকি ব্যবসায়ীদের শিক্ষা দিতে তরমুজ না খাওয়ার পরামর্শ দিচ্ছেন কেউ কেউ। তবে তরমুজের দাম বৃদ্ধির বিষয়টি আমলে নিয়ে মাঠে নেমেছেন উপজেলা প্রশাসন।

এই সম্পর্কিত আরও সংবাদ

সংবাদ সারাবেলা