বাংলাদেশিকে হত্যা, সৌদি নাগরিকের মৃত্যুদণ্ডাদেশ

|| সাগর চৌধুরী, মধ্যপ্রাচ্য প্রতিনিধি ||

হত্যার বদলে হত্যা (মৃত্যুদণ্ড) যে দেশের আইন। যে দেশে অপরাধ করে সহজে ছাড়া পাওয়া যায়না। সেই সৌদি আরবের দাম্মামে বাংলাদেশি অভিবাসী সাগর পাটোয়ারী হত্যায় সৌদি নাগরিক উমর আল শাম্মেরীকে মৃত্যুদণ্ডের রায় প্রদান করেছে আদালত। দীর্ঘ পথ পাড়ি দিয়ে পনের বছর পর এই রায় আসে। 

দাম্মাম শহরের আবু হাদরিয়া সড়কের একটি পেট্রোল পাম্পে বাংলাদেশি অভিবাসী সাগর পাটোয়ারীর সাথে উমর আল শাম্মেরির বাদানুবাদ হয়। এক পর্যায়ে উমর পিস্তল দিয়ে গুলি করলে ঘটনাস্থলেই সাগর নিহত হন। গুলি করার পর উমর ঘটনাস্থল হতে পালিয়ে যান। ২০০৬ সালের জুন মাসে এ হত্যাকাণ্ড সংঘটিত হয়।

দীর্ঘদিন তদন্তের পর স্থানীয় আইন প্রয়োগকারী বাহিনী উমর আল শাম্মেরীকে ২০১৮ সালে সনাক্ত এবং আটক করে বিচারের সম্মুখীন করে।

সাগর পাটোয়ারী হত্যা মামলার শুনানিতে দাম্মাম ক্রিমিনাল কোর্টে মৃতের ওয়ারিশদের পক্ষে অভিযুক্তের মৃত্যুদন্ডের দাবী জানিয়ে এ পর্যন্ত ১২টি শুনানিতে বাংলাদেশ দুতাবাস প্রতিনিধি অংশগ্রহণ করেন। গত ২৪শে মার্চ অভিযুক্ত সৌদি নাগরিক উমর আল শাম্মেরির বিরুদ্ধে আনীত অভিযাগ প্রমাণীত হওয়ায় কোর্ট আসামীকে শিরচ্ছেদের মাধ্যমে মৃত্যুদণ্ড কার্যকরের রায় প্রদান করে।

আরও পড়ুনঃ  ভারতে একদিনে ৬০৮৮ করোনা সংক্রমণ শনাক্ত

নিহত সাগর পাটোয়ারী কুমিল্লা জেলার বরুড়া উপজেলার, নাগিরপাড় গ্রামের হাজী সোনা মিয়ার সন্তান।

এই সম্পর্কিত আরও সংবাদ

সংবাদ সারাবেলা