মুন্সীগঞ্জে বলাৎকারের অভিযোগে আটক মাদ্রাসাছাত্র

মুন্সীগঞ্জ সদর উপজেলায় ১০ বছরের এক মাদ্রাসা ছাত্রকে বলাৎকার করেছে তারই সহপাঠি ১৮ বছর বয়সি রাকিব। রাকিবকে ইতোমধ্যেই আটক করেছে মুন্সীগঞ্জ সদর থানা পুলিশ।

|| সারাবেলা প্রতিনিধি, মুন্সীগঞ্জ ||

মুন্সীগঞ্জ সদর উপজেলায় ১০ বছরের এক মাদ্রাসা ছাত্রকে বলাৎকার করেছে তারই সহপাঠি ১৮ বছর বয়সি রাকিব। রাকিবকে ইতোমধ্যেই আটক করেছে মুন্সীগঞ্জ সদর থানা পুলিশ।
রোববার ৭ই ফেব্রুয়ারি রাত ৮ টার দিকে পশ্চিম দেওভোগগ্রামের মাদরাসাতুল মদিনা ও জামিয়াতুল মদিনা মাদ্রাসা থেকে বলাৎকারের অভিযোগে রাকিবকে আটক করে সদর থানা পুলিশ।
পুলিশ ও পরিবার সূত্রে জানা গেছে, গত বুধবার ৩রা ফেব্রুয়ারি রাতে সহপাঠি ছাত্রটিকে নিজের রুমে ডেকে নিয়ে বলাৎকার করে রাকিব।
এতে বলাৎকারের শিকার ছাত্রটি অসুস্থ হয়ে পড়ে। পরের দিন বৃহস্পতিবার মাদ্রাসার শিক্ষক মো: নাছির ও মো: রাজু তাকে মুন্সীগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করেন। গোপনেই দেয়া হয় চিকিৎসা। ওই দুই শিক্ষক বিষয়টি অভিভাবক ও মাদ্রাসা কর্তৃপক্ষকে না জানিয়ে ঘটনাটি গোপণ রাখেন।
রোববার ৭ই ফেব্রুয়ারি বিকেলে ছেলেটি তার মায়ের কাছে বলাৎকার বিষয়টি জানায়। পরে মুন্সীগঞ্জ সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা(ওসি) আবু বক্কর সিদ্দিকিকে এ ঘটনাটি জানানো হয়। সদর থানায় তাসিমের মা জায়েদা আক্তার টুম্পার
লিখিত অভিযোগে অভিযুক্ত ছাত্র রাকিবকে(১৮) আটক করে পুলিশ।
মুন্সীগঞ্জ সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা(ওসি) আবু বক্কর সিদ্দিক জানান, এ ঘটনায় লিখিত অভিযোগের প্রেক্ষিতে অভিযুক্ত রাকিবের বিরুদ্ধে মামলা রুজু করে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে।

আরও পড়ুনঃ  ডা. ফেরদৌসকে নিজ কমিটির সদস্য দাবি করলেন বিএমএ চট্টগ্রামের সাধারণ সম্পাদক

এই সম্পর্কিত আরও সংবাদ

সংবাদ সারাবেলা