ভূরুঙ্গামারীতে বাঁশঝাড়ে কন্যাসন্তান ফেলে গেলেন মা

|| সারাবেলা প্রতিনিধি, কুড়িগ্রাম ||

কুড়িগ্রামের ভূরুঙ্গামারী হাসপাতালে কন্যা সন্তান প্রসব করে বাঁশ ঝাড়ে ফেলে গেছেন এক মা। গত শুক্রবার মোছাম্মৎ খাদিজা খাতুন প্রসবজনিত সমস্যা নিয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়। হাসপাতালের ভর্তিরেজিষ্টার সুত্রে জানা গেছে, খাদিজা খাতুন উপজেলা সদর ইউনিয়নের  গোপালপুর গ্রামের তহিদুল ইসলামের স্ত্রী।

ভর্তির পর শনিবার সকাল সাড়ে আটটার দিকে একটি কন্যাসন্তান জন্ম দেন খাদিজা খাতুন। নবজাতকের নাম রাখা হয় সুবর্ণা।

প্রসবের কিছুসময় পর হাসপাতাল থেকে কোন ছাড়পত্র না নিয়েই সন্তানসহ চলে যান খাদিজা খাতুন। পরে হাসপাতালের পেছনের একটি বাঁশঝাড়ে কান্নার আওয়াজ শুনে স্থানীয়রা শিশুটিকে উদ্ধার করে আবারও হাসপাতালে ভর্তি করায়। হাসপাতালের গাইনী বিভাগে শিশুটির চিকিৎসা চলছে।

এলাকাবাসীর ধারনা, কন্যাসন্তান হওয়ায় অথবা সন্তানটি বাবার পরিচয় অজ্ঞাত হওয়ার কারণে হয়তো শিশুটিকে ফেলে গেছেন মা।

এ প্রসঙ্গে উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. এ এস এম সায়েম জানান, শিশুটি এখন হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে এবং আমি পুলিশকে জানিয়েছি। কি কারনে ঐ মা এরকমটা করলেন তা জানা যায়নি।

শিশুটির প্রকৃত পরিচয় পাওয়া না গেলে সরকারী নির্দেশনা মতো প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে।

আরও পড়ুনঃ  নাচোলে অটোরিক্সা চালক হত্যায় মূল আসামী গ্রেফতার

এই সম্পর্কিত আরও সংবাদ

সংবাদ সারাবেলা