বগুড়ায় বাস-ট্রাকের সংঘর্ষে প্রাণ গেল ৬ জনের

|| সারাবেলা প্রতিনিধি, বগুড়া ||

শেরপুরে বগুড়া-ঢাকা মহাসড়কে শেরপুর পৌর কলেজ রোড এলাকায় যাত্রীবাহী বাস ও পাথরবোঝাই ট্রাকের সংঘর্ষে দুই গাড়ির চালকসহ নিহত হয়েছেন ছয়জন। আহত হয়েছেন আরও অন্তত ১৫ যাত্রী। আহতদের বগুড়ার শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ (শজিমেক) হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

রোববার সকাল ছয়টার দিকে উপজেলার ঢাকা-বগুড়া মহাসড়কের পৌরশহরের কলেজরোড এলাকার এই দুর্ঘটনায় হতাহতদের তাৎক্ষনিক পরিচয় মেলেনি।

স্থানীয়রা জানান, ঢাকা থেকে বগুড়াগামী এসআর ট্রাভেলসের একটি যাত্রীবাহী বাস বেপরোয়া গতিতে বগুড়ার দিকে যাওয়ার সময় বিপরীতমুখী পাথরবোঝাই ট্রাকের সঙ্গে সংঘর্ষ হয়। এতে বাস ও ট্রাকের সামনের অংশ দুমড়ে মুচড়ে যায়।দুর্ঘটনার খবর পেয়ে পুলিশ ও দমকল বাহিনী আহতদের উদ্ধার করে বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করে। দুর্ঘটনার কারণে বগুড়া-ঢাকা মহাসড়কে এক ঘণ্টা যানবাহন চলাচল বন্ধ থাকে।

শেরপুর ফায়ার সার্ভিস অ্যান্ড সিভিল ডিফেন্সের স্টেশন অফিসার রতন হোসেন জানান, ঢাকা থেকে ছেড়ে আসা বগুড়াগামী এসআর ট্রাভেলস পরিবহনের একটি যাত্রীবাহী বাস (ঢাকা মেট্রো ব-১৪-৬০৯৯) ওই স্থানে পৌঁছালে বিপরীত দিক থেকে আসা পাথরবোঝাই ট্রাকের (ঢাকা মেট্রো ট-১৩-০০৫৩) মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। এতে ঘটনাস্থলেই বাসের চালক-হেলপার ও ট্রাকের চালকসহ মোট ছয়জন নিহত হন। সেই সঙ্গে আহত হন আরও অন্তত ১৫ যাত্রী। তাদের প্রথমে স্থানীয় উপজেলা স্বাস্থ্যকমপ্লেক্সে নেয়া হয়। কিন্তু অবস্থার অবনতি হলে তাৎক্ষণিক বগুড়ায় শজিমেক হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়।

আরও পড়ুনঃ  করোনাপরিস্থিতিতে স্বাস্থ্য কর্তাদের প্রতিমন্ত্রীর যত নির্দেশনা

হতাহতের সংখ্যা নিশ্চিত করে শেরপুর হাইওয়ে পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ বানিউল আনাম বলেন, দুর্ঘটনার পর মহাসড়কে যান চলাচল বন্ধ থাকে। পরে পুলিশ গিয়ে পরিস্থিতি স্বাভাবিক করে। 

এই সম্পর্কিত আরও সংবাদ

সংবাদ সারাবেলা